রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় আলহাজ্ব একাব্বর হোসেন এমপির জানাযা সম্পন্ন

0
369
রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় আলহাজ্ব একাব্বর হোসেন এমপির জানাযা সম্পন্ন
রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় আলহাজ্ব একাব্বর হোসেন এমপির জানাযা সম্পন্ন

সাব্বির হোসেন, টাংগাইল প্রতিনিধিঃ

গতকাল (১৬ নভেম্বর) মঙ্গলবার দুপুর ২ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা সিএমএইচ হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তার নিজ ভবনের পাশে বাইতুল আনাম জামে মসজিদে প্রথম নামাজের জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার বাদ যোহর মির্জাপুর শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে তার দ্বিতীয় নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, সাবেক এমপি ফজলুর রহমান খান ফারুক, টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জহেরুল ইসলাম, টাঙ্গাইল জেলা সদরের এমপি সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর উপজেলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু, মির্জাপুর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর শরিফ মাহামুদ, ঘাটাইলের সাবেক এমপি আমানুর রহমান খান রানা, সখিপুর উপজেলার সাবেক এমপি অনুপম শাজাহান জয়, টাংগাইল জেলা আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য খান আহম্মদ শুভ, মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ওয়াহিদ ইকবাল, টাংগাইল জেলা যুবলীগের সভাপতি রেজাউল করিম চঞ্চল, সম্পাদক ফারুক হোসেন মানিক, জেলা যুবলীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মির মঈন হোসেন রাজিব, মির্জাপুর কলেজের সাবেক জিএস সেলিম সিকদার সহ আরো উপস্থিত ছিলেন,মির্জাপুর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক শামীম আল মামুন, যুগ্ন আহবায়ক আবিদ হোসেন শান্ত, মির্জাপুর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম, বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক মীর সাব্বির, আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা-উপজেলা ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দরা।

আলহাজ্ব একাব্বর হোসেন, কিডনী জনিত অসুস্থতার কারণে নিয়মিত ডায়ালাইসিস করতেন। গত ১৯ অক্টোবর মঙ্গলবার ধানমন্ডির আনোয়ার খান মর্ডান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়মিত ডায়ালাইসিস করতে গেলে সেখানে তাঁর অবস্থার অবনতি ঘটে; পরে তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। ২০ অক্টোবার বুধবার সিটিস্ক্যান রিপোর্টে তিনি ব্রেনস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছেন বলে চিকিৎসক নিশ্চিত হন।

ব্যক্তিগত ও রাজনৈতিক বৃত্তান্তঃ –
মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা একাব্বর হোসেন ২০০১ সালে অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে টাঙ্গাইল-৭ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। পরে ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত নবম, দশম ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে একই আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।
তিনি জাতীয় সংসদে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবং ভূমি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

একাব্বর হোসেন এমপি ১৯৫৬ সালের ১২ জুলাই মির্জাপুর উপজেলার পোষ্টকামুরী গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম আলহাজ ওয়াজউদ্দিন এবং মাতার নাম রেজিয়া বেগম। তিনি ১৯৭৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএসএস সম্মান ও ১৯৭৮ সালে এমএসএস ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি ছাত্রজীবন থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। ১৯৭৩ সালে সরকারী তিতুমীর কলেজে পড়াকালীন সময়ে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। পরে ১৯৭৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মহসীন হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং ১৯৭৮ সালে একই হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯০ সালে তিনি মির্জাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তিনি মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।
ব্যক্তিগত জীবনে আলহাজ একাব্বর হোসেন এক ছেলে দুই মেয়ের জনক।

বুধবার বাদ আসর নামাযের পর শেষ জানাযা সম্পন্ন করে তার নিজ পারিবারিক কবর স্থানে দাফন করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here